রবিবার, ২২ মে ২০২২, ০১:০১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঈদে আসছে জাহিদ এবং করিমের “ছিনতাই গরিতাম” কক্সবাজারে আলোচিত মোরশেদ হত্যার সাথে জড়িত ৫ আসামি চট্টগ্রাম থেকে গ্রেপ্তার এক রাজা এবং তিন মন্ত্রীর গল্প —— কক্সবাজারে ইয়াবাসহ সাবেক ফুটবলার ও জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের প্রশিক্ষক হিসেবে দায়িত্বরত খালেদ মোশারফ সহ দুই জন আটক। রাংগামাটি সদর তবলছড়ির খানবাড়ি সংলগ্ন এলাকায় ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। সাতক্ষীরা সীমান্ত থেকে ২৪৯ গ্রাম ওজনের ০২টি স্বর্ণের বারসহ ০১ জন পাচারকারী আটক কুষ্টিয়ায় লালন স্মরণোৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ট্রাস্টি চেয়ারম্যান জাফর, সভাপতি সোহেল, বিএমএসএফের ১৩১ সদস্যের কমিটি গঠিত প্রাইমারি শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ৮টা থেকে ৯টা বাজলেই কামরাঙ্গীরচরের রাস্তায়, অলি গলিতে ধুলির ঝড়

“হবিগঞ্জে কাজ দেয়ার কথা বলে নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ”

  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৯ অক্টোবর, ২০২০, ৪.২২ পিএম
  • ২১৭ বার পঠিত

“হবিগঞ্জে কাজ দেয়ার কথা বলে নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ”

রিপোর্টঃ পলাশ দেবনাথ দৈনিক এটিএম  নিউজ সিলেট।

হবিগঞ্জের মাধবপুরের এক নারীকে (৩০) কাজ দেয়ার নামে ঢাকা নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এমনকি ওই নারী ঢাকা থেকে বাড়ি চলে আসতে চাইলে করা হয় শারীরিক নির্যাতন।
অবশেষে কৌশলে সেখান থেকে পালিয়ে আসেন ওই নারী। গুরুত্বর অসুস্থ অবস্থায় শুক্রবার (৯ অক্টোবর) সকালে তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
ধর্ষণের শিকার নারী মাধবপুর উপজেলার শ্রীধল গ্রামের জনৈক ব্যক্তির স্ত্রী। তিনি চার সন্তানের জননী।
ধর্ষণের শিকার নারী জানান, একই উপজেলার কৃষ্ণপুর গ্রামের শামীম রেজা নিজের ঢাকার মিরপুর কচুক্ষেতে তার বাসায় কাজ দেয়ার (বুয়া) কথা বলে মাসখানেক আগে ওই নারীকে নিয়ে যান। সেখানে নেয়ার পর ওই নারীর প্রতি কুনজর পড়ে শামীম রেজার। তার স্ত্রী চাকরির সুবাধে বাসায় না থাকার সুযোগে গত কয়েক দিন ধরে শামীম ওই নারীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। লজ্জায় ওই নারী বিষয়টি কাউকে বলেন নি। এরপরও আরও কয়েকবার তাকে ধর্ষণ করেন শামীম। এক পর্যায়ে শামীম রেজার নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে ওই নারী বাড়ি চলে আসতে চাইলে শামীম রেজা তাকে আটকিয়ে রাখে। উল্টো তার কাছ থেকে মোবাইল ছিনিয়ে নিয়ে মারপিট করেন শামীম রেজা।
বুধবার রাতে কৌশলে ওই নারী ঢাকা থেকে পালিয়ে মাধবপুর চলে আসেন। পরে তিনি বিষয়টি স্থানীয় মেম্বার, চেয়ারম্যান ও মাধবপুর থানার ওসিকে বিষয়টি জানালে তারা তাকে হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পরামর্শ দেন। শুক্রবার সকালে পরিবারের লোকজন তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এ ব্যাপারে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালের দায়িত্বপ্রাপ্ত চিকিৎসক জিয়াউর রহমান বলেন, ‘ওই নারীর শরিরে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধর্ষণের বিষয়টি নিশ্চিতের জন্য শনিবার তার ডাক্তারি পরিক্ষা হবে।’
মাধবপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইকবাল হোসেন বলেন, সুষ্ট তদন্তের স্বার্থে আমি তাকে পরামর্শ দিয়েছি হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News