রবিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২১, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

সৌদিতে পর্যটন কার্যক্রম চালু শিগগিরই

  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২০ জুন, ২০২০, ৩.৫৬ পিএম
  • ১৪২ বার পঠিত

রহিম মিয়া, সৌদিআরব বিশেষ প্রতিনিধি
করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় তিনমাস লকডাউনে ছিল সৌদি আরব। ফলে শীর্ষ এ খাতটি স্থবির হয়ে পড়েছিল। অচলাবস্থা দূর করতে শিগগিরই পর্যটন কার্যক্রম শুরু করতে যাচ্ছে দেশটি। বৃহস্পতিবার পর্যটনমন্ত্রী আহমেদ আল-খাতিব এক জরুরি বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এসব বলেন। ১৮ জুন দেশটির বহুল প্রচারিত ইংরেজি দৈনিক ‘সৌদি গেজেট’ এ সম্পর্কিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করে।

তিনি বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি ইতিবাচক এবং তার দেশে গ্রীষ্মের অনুষ্ঠান কার্যক্রম চালু করতে প্রস্তুত, যা দেশীয় পর্যটনকে আরও ইতিবাচক করে তুলবে। পর্যটন কর্তৃপক্ষের এক গবেষণায় দেখা গেছে, শতকরা ৮০ ভাগ সৌদি নাগরিক অভ্যন্তরীণ পর্যটনের সুবিধা নিতে আগ্রহী। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও সংশ্লিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের সঙ্গে প্রয়োজনীয় সমন্বয়ের পর আমরা জনগণের জন্য অভ্যন্তরীণ পর্যটন কার্যক্রম শুরু করব’।
বেশ কয়েকটি আরব পর্যটন মন্ত্রী এবং সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলির প্রতিনিধিরা বৈঠকে অংশগ্রহণ করেন এবং মহামারিজনিত কারণে এই অঞ্চলের পর্যটন খাত যেসব চ্যালেঞ্জের মুখোমুখি হচ্ছে তা চিহ্নিত করে আলোচনা করেন।
আল-খতিব আরও উল্লেখ করেন, সৌদি আরবের নেতৃত্বে আরব মন্ত্রিপরিষদ কাউন্সিল ফর ট্যুরিজম ব্যতিক্রমী পরিস্থিতিতে এই ভার্চুয়াল অধিবেশনটি এই মহামারি থেকে বেরিয়ে আসার এবং পর্যটন খাতকে পুনরুজ্জীবিত করার নিমিত্তে অনুষ্ঠিত হয়।
সৌদি আরব চাকরি ও ব্যবসা-বাণিজ্য রক্ষা করতে এবং চলমান সংকটের অর্থনৈতিক বোঝা কমাতে মোট ৬১ বিলিয়ন ইউএস ডলারের বেশি মূল্যের আর্থিক প্রণোদনার একটি প্যাকেজ প্রস্তাব করেছে।
দেশীয় পর্যটন খাত দেশটির একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থনৈতিক ক্ষেত্র কারণ এটি তিন মাসের জন্য বেসরকারি খাতে সৌদি কর্মচারীদের বেতন ৬০ শতাংশ যোগান দেয়।
উল্লেখ্য, সৌদি আরবে প্রতি বছর জুন থেকে আগস্ট পর্যন্ত তিন মাস দেশটির সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকে সে সুবাধে ভ্রমণ প্রিয় আরবীয়া দেশটির তথা বিশ্ব মুসলিমদের পবিত্র স্থান মক্কা মুকাররমা ও মদিনামুনাওয়ারাসহ দেশের আভ্যন্তরীন দর্শনীয় স্থানগুলো ভ্রমণ করে।
যেমনঃ দেশটির পর্যটনের রাজধানী খ্যাত ‘আব’। যেখানে আছে দেশটির সর্বোচ্চ পর্বত শিঙ্গ ‘আল সুদা’ যা ভূপৃষ্ঠ থেকে প্রায় ১২ হাজার ফুট উপরে যেখানে গেলে মেঘমালার শীতল পরশ অনুভব করা থেকে কেউ বাদ যায় না এবং আরও আছে দর্শনীয় স্থান আল হাবলা, গ্রিন মাউন্টেন, ওয়াল হেরিটেজ গ্রাম রিজিল আলমা। এছাড়া পুরো তিনমাসজুড়ে ফেস্টিভ্যালের ব্যবস্থা করা হয় স্থানগুলিতে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News