সোমবার, ২৯ নভেম্বর ২০২১, ০৩:১১ অপরাহ্ন
শিরোনাম :

সিলেটে অপরাধীদের তিন স্তরের তালিকা, শীঘ্রই অভিযান

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর, ২০২০, ১.৩৯ পিএম
  • ১০৩ বার পঠিত

সিলেটে অপরাধীদের তিন স্তরের তালিকা, শীঘ্রই অভিযান

 

সিলেটে অপরাধী এবং উঠতি বয়সি অপরাধীদের দমনে মাঠে নামছে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। রাজনৈতিক দলের ছত্রছায়ায় যে বা যারা বিভিন্ন এলাকায় নানা অপরাধের সাথে এমনকি সাধারন মানুষের সাথে যেকোন অন্যায় আচরণ করেন এবং বিভিন্ন ধরনের অপরাধের সাথে জড়িত রয়েছেন তাদের তালিকা করা হচ্ছে। তার মধ্যে রয়েছ, কিশাের গ্যাং, ইভটিজার ও চাঁদাবাজ। মহল্লাভিত্তিক এ তালিকা সম্পন্ন হওয়ার পরই আইনিভাবে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

জানা যায়, বিশেষ করে ক্ষমতাসীন দলের কোন কোন নেতার নাম ভাঙ্গিয়ে অথবা ছত্রছায়ায় যারা অপরাধ মূলক কাজের সাথে জড়িত রয়েছেন এবং সরকারের ভাবমূর্তি প্রশ্নবিদ্ধ করছে সেইসব অপরাধী সহ সব ধরনের অপরাধীদের একটি তালিকা এখন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে।

 

 

সংশ্লিষ্ট নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, সাম্প্রতিক সময়ে নগরীর কিছু কিছু এলাকায় বেশ কয়েকটি আলাচিত ও বিতর্কিত ঘটনা ঘটার পর ঐ এলাকার রাজনৈতিক পরিচয়ের আড়ালে যেসব অপরাধচক্র গড়ে উঠেছে তাদের কাউকে ছাড় দেওয়া হবেনা। বিষয়টি নিয়ে জোরালো ভাবে কাজ করছেন আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর একাধিক উইংসের সদস্যরা।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সিলেট মহানগরীর পাড়া-মহল্লার অপরাধীদের তালিকা তৈরি হচ্ছে। এ লক্ষ্যে একাধিক সংস্থা কাজ করছে। তিন স্থরের অপরাধীদের এ তালিকা তৈরির পরই অভিযানে নামবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।

 

সূত্র জানায়, নগরী বিভিন্ন এলাকায় রাজনৈতিক পরিচয়ের আড়ালে জায়গা দখল, চাদাবাজি সহ বিভিন্ন ধরনের অপরাধ মূলক কর্মকান্ড চালানো হচ্ছে। কারা চালাচ্ছে আর কারা তাদের প্রশ্রয় দিচ্ছেন সকল তথ্য আইনশৃঙ্খরা রক্ষাকারী বাহীনির হাতে রয়েছে। সে অনুযাীয় তালিকা তৈরী হচ্ছে। তিন স্তরের এই তালিকায় যদি অপরাধীদের প্রশ্রয়দাতা কোন গডফাদারও থেকে থাকেন তাকেও ছাড় দেওয়া হবে না বলে জানা গেছে।

 

বিষয়টি সম্পর্কে র‌্যাব-৯ এর মূখপাত্র এএসপি ওবাইন সিলেট প্রতিদিনকে জানান, র‌্যাব সব সময় অপরাধীদের দমনে তৎপর রয়েছে। শুধু তালিকা নয় যে কোন অপরাধীদের দমনে র‌্যাব কাজ করছে। তবে এই মুহুর্তে অভিযানের বিষয়ে সব কিছু বলা যাবেনা।

 

গত ২২ নভেম্বর রবিবার সকালে এসএমপির কােতােয়ালী মডেল থানার ওপেন হাউজ ডে অনুষ্ঠানে পুলিশ কমিশনার বলেন, ’পুলিশ জনগণের সহায়তা নিয়ে কাজ করে। অপরাধ দমনে ভয় না পেয়ে সকলেরই উচিত পুলিশকে সহায়তা করা। উপস্থিত গণমান্য ব্যক্তিবর্গের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, প্রতিটি এলাকায় বহিরাগতরা এসে অপরাধ করেনা। স্থানীয় ছেলেরাই তা করে থাকে। সুতরাং এলাকার লােকজন এদেরকে চেনেন। সেহিসেবে আপনারা আমাদের তথ্য দিয়ে সহায়তা করুন।’

 

এক্ষেত্রে তথ্যদাতার পরিচয় গােপন রাখার কথাও জানান পুলিশ কমিশনার। তিনি আরো বলেন, অপরাধী হয়ে কেউ জন্মায়না। শিশুদের দু’টি শিক্ষা রয়েছে। একটি প্রাথমিক শিক্ষা ও অপরটি পারিবারিক শিক্ষা। শুরুতে পরিবার থেকেই শিশুকে শিক্ষা নিতে হবে। এখান থেকে সুশিক্ষা পেলে তার নৈতিক অবক্ষয় হবে না। এখানে পরিবার বড় একটি ভুমিকা পালন করে। পুলিশ কমিশনার বলেন, বর্তমানে অপরাধের তিন স্থরের যে তালিকা তৈরি হচ্ছে তার মধ্যে রয়েছ, কিশাের গ্যাং, ইভটিজার ও চাঁদাবাজ। মহল্লাভিত্তিক এ তালিকা সম্পন্ন হওয়ার পরই আইনিভাবে এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

 

রিপোর্টঃ পলাশ দেবনাথ দৈনিক এটিএম নিউজ সিলেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News