বৃহস্পতিবার, ০৫ অগাস্ট ২০২১, ০১:৩৫ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
চকরিয়ার সুরাজপুর-মানিকপুরে বন্যা দুর্গতদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ  ব্রেকিং নিউজ বাংলাদেশে করোনা আপডেট আজ বুধবার,  আজকে সুরাজপুর মানিকপুর ইউনিয়নে একটি করোনা প্রতিরোধ কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। উখিয়া উপজেলা যুবলীগের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করছে মাদকাসক্ত মুজিব, ইয়াবা কারবারীদের নিয়ন্ত্রণ করে খুলনা বিভাগে গত ২৪ ঘণ্টায় ৩৫ জনের মৃৃত্যু: সনাক্ত ৭৪৫ জন। জয়পুরহাটে সন্তানের খাবারের জন্য মা সন্তানকে দত্তক দিতে চায় চিত্র নায়িকা পরি মনির বাসায় RAB এর অভিযান। পরিবেশের বিপর্যয়: ৮ বছরের বাগান, ১০ লাখ লেবুসহ ৫ হাজার গাছ কেটে দিল বন বিভাগ ! দোয়ারাবাজারে পুলিশের অভিযানে চুরি হওয়া মহিষ বিক্রির টাকাসহ আটক ৩ ১০ আগস্ট পর্যন্ত চলমান লকডাউন বৃদ্ধি

যেসব প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা পেনশন পাবেন না

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৩ ডিসেম্বর, ২০২০, ৭.৪১ পিএম
  • ৮১ বার পঠিত

যেসব প্রতিষ্ঠানের কর্মচারীরা পেনশন পাবেন না

 

 

দৈনিক এটিএম নিউজ-

যেসব প্রতিষ্ঠানের কর্মচারী পেনশন প্রাপ্ত হবেন না। তার বিবরণী নিম্নে দেওয়া হলো। যদি কোন সরকারি কর্মচারী সরকার কর্তৃক নিয়োজিত না হন এবং সরকার কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত না হন তবে চাকুরী পেনশনযোগ্যবলে গণ্য হবে না। (আরটিকেল ৩৬২: বিএসআর ২৬০)।

 

ক) পৌরসভা ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের চাকরী: যেহেতু পৌরসভা ও স্বায়ত্তশাসিত প্রতিষ্ঠানের চাকরীতে বেতন সরকারি রাজস্ব খাত হতে প্রদান করা হয় না। সুতরাং এটা পেনশন যোগ্য চাকরী নয়। এটি ছাড়া রাষ্ট্রপতির হাউজ হোল্ড এ্যালাউন্স এবং কন্ট্রাক্ট ইসটাবলিস্টমেন্ট এ্যালাউন্স থেকে প্রাপ্ত অর্থে দেয় বেতনের চাকরী পেনশন যোগ্য নয়।

 

খ) জেলা বোর্ড কর্মচারীদের পেনশন: সরকার ৬-৭-৭৭ইং তারিখের এক স্মারক মূলে ঢাকা, ফরিদপুর, যশোর, খুলনা, কুষ্টিয়া, বগুড়া, পাবনা, কুমিল্লা, নোয়াখালি এবং রংপুর জেলাসমূহের স্বাস্থ্য কর্মচারীগণকে তাদের পূর্বের চাকরীর সময় চাকরী জেলা বোর্ডের টাকা সরকারি খাতে জমা দেয়া সাপেক্ষে পেনশন যোগ্য বলেয়া ঘোষণা করেছেন।

 

গ) প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক: সরকারি জাতীয়করণকৃত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের বেসরকারি চাকরীর ৫০% সরকারি চাকরী হিসাব গণ্য করে পেনশন এবং গ্র্যাচুইটি প্রদানের বিষয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছেন।

 

সাবেক জেলা শিক্ষা বোর্ড/মিউনিসিপ্যালিটি কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষক হিসেবে এক বা একাধিক বিদ্যালয়ের সাকুল্য চাকুরীকাল, অথবা প্রাক্তন জেলা স্কুল বোর্ড/মিউনিসিপ্যালিটি, সরকার কর্তৃক সাহায্যপ্রাপ্ত বিদ্যালয়ের শিক্ষকগণের নিয়মিত অবিচ্ছিন্ন চাকুরীকালের অর্ধেক এবং সরকারিকতৃ পরবর্তী সময়ের পূর্ণ চাকরীকাল যোগ করে পেনশনযোগ্য চাকরীকালের দৈর্ঘ্য গণনা করতে হবে।

 

১-৭-৭৩ ইং তারিখের পর হইতে যে সকল অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ইতিপূর্বে পূর্বের নিয়মে কেবলমাত্র গ্র্যাচুইটি গ্রহণ করিয়াছেন, তাঁহারাও পেনশন গ্র্যাচুইটি পাইতে পারেন। তবে প্রাপ্য অর্থ হইতে পূর্বে গৃহীত গ্র্যাচুইটির টাকা বাদ দিতে হইবে।

 

যে সকল অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ইতিপূর্বে গ্র্যাচুইটি গ্রহণ করিয়াছেন এবং মৃত্যৃবরণ করিয়াছেন তাঁহাদের ক্ষেত্রে নতুন নির্দেশ প্রযোজ্য হইবে না। ১-৭-৭৩ ইং তারিখের পর হইতে যে সকল অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক ইতিপূর্বে পেনশন, গ্র্যাচুইটি কিছুই গ্রহণ করেন নাই এবং মৃত্যুবরণ করিয়াছেন, তাঁহাদের ক্ষেত্রে পারিবারিক পেনশন প্রযোজ্য হইবে।

 

এইভাবে সরকার তাহার কর্মচারীদের অবসরকালীন সময়ে যাহাতে সুস্থ্য সুন্দর অবসর জীবন অতিবাহিত করিতে পারেন তাহার সুব্যবস্থা করিয়া থাকেন।

সৌজন্যে, gonews

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By BanglaHost