সোমবার, ০২ অগাস্ট ২০২১, ০৯:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হওয়া মোহাম্মদ হোসাইন এর এতিম দু শিশুর জন্য পূণর্বাসন ফাউন্ডেশন গঠন ও সহায়তা প্রদান; চলাচলের অনুপযোগী দোয়ারাবাজারের লাফার্জ ক্যাম্পের সামনের সড়ক: বেড়েই চলছে জনদূর্ভোগ  ধুনটে কনস্টেবল জগদীশ চন্দ্রকে অবসরকালীন বিদায় জানালো থানা পুলিশ খুলনা বিভাগে করোনায় ১৯ জনের মৃৃত্যু টেকনাফে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় এক রোহিঙ্গা উদ্ধার টানা বৃষ্টিতেপ্লাবিত কয়রা উপজেলা। করোনায় খুলনা বিভাগে ২৪ ঘন্টায় ৩৪ জনের মৃৃত্যু। শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের 1 বছর একশত ১৫ দিন পার হলো বৃহস্পতিবার  বদরখালী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ওসমান গণির আকষ্মিক মৃত্যুতে এমপি জাফর আলম বিএ অনার্স এম এ এর শোক চকরিয়ায় চলাচলের রাস্তা কাঁটাতারের বেড়া দিয়ে ঘিরে রাখায় পথচারীদের হাঁটতে দারুণ ভোগান্তি 

মিরসরাইয়ে করোনাঝুঁকি নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ৮ জুন, ২০২০, ৫.৫৫ পিএম
  • ৭৯ বার পঠিত

মিরসরাই উপজেলার গবাদিপশু পালনকারী ও খামারীদের ভরাস্থল হয়ে উঠেছে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর। বর্তমান করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও প্রাণি সম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সমন্বয়ে বিভিন্ন প্রকল্পের কাজ চলমান রয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এনএটিপি ফেজ-২ প্রকল্প, এলডিডিপি প্রকল্প, ব্লাক বেঙ্গল জাতের ছাগল উন্নয়নও সম্প্রসারন প্রকল্প, আধুনিক প্রযুক্তিতে গরুহৃষ্টপুষ্টকরণ প্রকল্প, পিপিআর রোগ নির্মূল এবং ক্ষুরা রোগ নিয়ন্ত্রণ প্রকল্প, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টির আর্থ সামাজিক ও জীবন মানোন্নয়নের লক্ষ্যে সমন্বিত প্রাণি সম্পদ উন্নয়ন প্রকল্প এবং জনস্বাস্থ্য উন্নয়ন প্রকল্প চলমান রয়েছে। প্রকল্পগুলোর মধ্যে এনএটিপি ফেজ-২ প্রকল্পের আওতায় প্রতি বছর উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নে গাভী পালন, গরুহ্নষ্টপুষ্টকরণ, ছাগল পালন ও মুরগী পালন সিআইজি সমবায় সমিতির প্রত্যেকটিতে ১ জন করে ৪৮ জন খামারীকে উপকরণ প্রদান করা হয়।

চলতি বছরের ১৭ মার্চ মুজিববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে মিরসরাইয়ের সাংসদ ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ হোসেনের উপস্থিতিতে ১৬ জন মুরগীর খামারীর মাঝে ১০টি সোনালী (ফাউমী) মুরগী, ১ টি করে মুরগীর ঘর, মুরগীর খাদ্য, সাইনবোর্ড ব্রিফিং ভাতা বিতরণ করা হয়।

এরপর গত ৩ জুন মিরসরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জসিম উদ্দিনের উপস্থিতিতে ১৬ জন গাভীর খামারীদের মধ্যে ৬ বস্তা করে গরুর খাদ্য, ১টি মেঞ্জার, ১ টি সাইনবোর্ড, ২ কেজি ভিটামিন, প্রয়োজনীয় কৃমির ঔষধ ও ব্রিফিং ভাতা প্রদান করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় ৮ জুন ১৬ জন গরু হৃষ্টপুষ্টখামারীদের মধ্যে ৫ বস্তা করে গরুর খাদ্য, ২ টিন করে চিটাগুড়, ১টি মেঞ্জার, ১টি সাইনবোর্ড, ২ কেজি ভিটামিন, প্রয়োজনীয় কৃমির ঔষধ ও ব্রিফিং ভাতা প্রদান করা হয়।

মিরসরাই উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. শ্যামল চন্দ্র পোদ্দার জানান, ইতিমধ্যে ২০১৯-২০ অর্থবছরে মিরসরাই উপজেলায় সিআইজি ও নন-সিআইজি খামারীদের মাঝে ৩৪টি ডিওয়ার্মিং ক্যাম্পেইন, ৯৬টি ভ্যাকসিনেশন ক্যাম্পেইন, ১৬টি ফডার ডেমোনেসেষ্ট্রশন, ১১টি সিআইজি প্রশিক্ষণ, ৮টি সিআইজি এবং নন-সিআইজি সমাবেশ, ১৬টি ইনফার্টিলিটি ক্যাম্পেইন, ১টি এক্সপোজারভিজিটি সম্পাদন করা হয়। নির্ধারিত ৯৬০ জন সিআইজি সদস্য ছাড়াও প্রায় ৪ হাজার জন সুফলভোগী এই সুবিধা পেয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, মিরসরাই উপজেলা বর্তমানে ডিম, দুধ ও মাংসে স্বয়ংসম্পূন্নতা অর্জন করেছে। দেশের মোট আমিষের শতকরা ৬০ ভাগ যোগান দেয় প্রাণিজ আমিষ, যা বাস্তবায়নে প্রাণিসম্পদ বিভাগ অগ্রনী ভূমিকা রাখছে। বর্তমানে প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কার্যক্রমকে জরুরী সেবা হিসাবে ঘোষণা করা সময়ের দাবী।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By BanglaHost