সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৪ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

বিশ্বনাথে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাঁচার আকুতি কলেজ ছাত্রীর 

  • আপডেট টাইম : সোমবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০২০, ৩.২৪ পিএম
  • ৫৮ বার পঠিত

বিশ্বনাথে সন্ত্রাসীদের হাত থেকে বাঁচার আকুতি কলেজ ছাত্রীর

 

বিশ্বনাথ উপজেলার অলংকারী ইউনিয়নের পিটাকরা গ্রামের একটি নিরিহ পরিবারকে জামাত বিএনপির সন্ত্রাসীরা বাড়ি ঘর থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র করছে। বিষয়টি থানা পুলিশ জেনেও কোন ব্যবস্থা নেয়নি এমন অভিযোগ এনে গতকাল শনিবার দুপুরে বিশ্বনাথ প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ তুলে ধরেন রাগীব রাবেয়া কলেজের এইচএসসি পরীক্ষার্থী ইমরানা বেগম। তিনি পিটাকরা গ্রামের দিনমজুর আলকাছ আলীর মেয়ে।

 

লিখিত বক্তব্যে ইমরানা বলেন, পিটাকরা গ্রামের আক্তার হোসেন, ময়নুল ইসলাম, ইসলাম উদ্দিন, মাহমুদ আলী, আব্দুল অদুদ আজাদ, ময়না মিয়াসহ জামাত-বিএনপির সন্ত্রাসীচক্র তাদের পূর্বপূরুষের জায়গা জমি জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করছে। এনিয়ে প্রতিপক্ষ আক্তার হোসেন পক্ষের সঙ্গে তাদের পারিবারিক বিরুধ চলছে। এ ঘটনায় প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের পরিবারের উপর হামলা করে তার চাচা মাদ্রাসা শিক্ষক ইলিয়াস হুমাইদিকে গুরুতর আহত করা হয়। এঘটনায় ২০১৯ সালের ১অক্টোবর বিশ্বনাথ থানায় জিডি করতে গেলে তার চাচা হুমাইদিকে থানা থেকে বের করে দেন ওসি শামীম মুসা।এরপর পুলিশের উর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করার পরও জিডি না নেওয়ায় তার চাচা ৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ দিলে ২৯ অক্টোবর ১৬২৮ নং জিডি এন্ট্রি করেন ওসি।এরপর গত ২৬ মার্চ তার বাবা আলকাছ আলী ও চাচা হুমাইদিকে হত্যার উদ্যেশ্যে হামলা করেন প্রতিপক্সের লোকজন। এতে তার চাচা হুমাইদির মাথায় গুরুতর জখম হলে ১৮টি সেলাই থাকা সত্বেয় মামলা নেয়নি পুলিশ। অথচ, এরই মধ্যে প্রতিপক্ষের পক্ষ নিয়ে তার বাপ-চাচাদের বিরুদ্ধে ৩টি মামলার চার্জশিট দিয়েছে পুলিশ।

 

অন্যদিকে ২০১৮ সালের ৯ সেপ্টেম্বর গ্রামের শিবির কর্মী আব্দুল আলী তার ‘আব্দুল আলী’ নামে ফেসবুক আইডিতে ‘বিশ্ব কাফের হাসিনার পতন চাই, সারা বছর ভন্ডামি করে কিন্তু নির্বাচন এলে হিজাব পরে’ আল্লামা সাইদিকে নরপশু হাসিনার বিশ্ব কাফের ভারতের দালালি শেক হাসিনার জেল থেকে মুক্তি দিন’ এভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটুক্তি করে।

 

গত ২০২০ সালের ১ সেপ্টেম্বর গ্রামের মাহমদ আলী নামের অপর জামাত নেতা তার ফেসবুক আইডিতে ‘শেখ হাসিনা আসলেই কোন ধর্মে বিশ্বাসি, উনার গণভবনে মুর্তি কেন জাতি জানতে চায়’, ইত্যাদিসহ ফেসবুকে আরও নানা কটুক্তি করে। এ ধরনের মানহানীকর কটুক্তি একই গ্রামের উগ্র শিবির কর্মী ইমরান আহমদ রানাও তার ফেসবুক আইডিতে হুমাইদির ছবি আপলোড করে ব্যক্তিগত পারিবারিক ও ধর্মীয় অনুভুতিতে চরম আঘাত করে। অভিযোগ দিলে থানা পুলিশ কোন ব্যব্স্থা নেয়নি। উল্টো কটুক্তিকারীদের পক্ষ নিয়ে ওসি শামীম মুসা তাদেরকে বাড়ি ঘর থেকে উচ্ছেদের ষড়যন্ত্র করছেন। ফলে তাদের দরিদ্র এ পরিবারটি দারুন নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

 

প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটুক্তি করা হলে মামলা না নেওয়ার প্রশ্নই উঠেনা জানিয়ে বিশ্বনাথ থানার ওসি শামীম মুসা বলেন, ইলিয়াস হুমাইদি ও আক্তার হোসেনদের মধ্যে গ্রামের মাজার ও মাজারের জায়গা নিয়ে বিরোধ রয়েছে। এনিয়ে উভয় পক্ষে মামলা রয়েছে। কিন্তু শতভাগ পুলিশি সহযোগীতা পাওয়ার পরও ইলিয়াস হুমাইদি ভাতিজিকে দিয়ে মিথ্যা অভিযোগ উত্তাপন করে সংবাদ সম্মেলন করিয়েছেন।

 

রিপোর্ট :পলাশ দেবনাথ এটিএম নিউজ টিভি

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News