বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৪:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শহীদ শেখ ফজলুল হক মণি আন্তঃউপজেলা ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০২২ খুলনা বিভাগে করোনায় ৯ জনের মৃত্যু : শনাক্ত ১২৪ জন। কক্সবাজার সমুদ্র বুকে প্রথম রানওয়ে: দেশে প্রথম টেকনাফের চাঞ্চল্যকর ইসমত আরা হত্যাকান্ডের মামলা এখন হিমাগারে দীর্ঘ ৮০ বছর পর চন্দনাইশ মকবুলিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অভিভাবক নির্বাচন সম্পন্ন হয়, নিখোঁজ_সংবাদ….। টেকনাফে ২লাখ ৫০হাজার পিস ইয়াবাসহ ট্রলার জব্দ ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মোস্তাক অনুসারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী ধুনটে গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে ‘ওসির ভাব নিয়ে’ মামলা তদন্ত করেন এসআইয়ের স্বামী!

পেকুয়ায় মগনামার সভাপতিকে বৈধতা দিল জেলা আ’লীগ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৪ জুলাই, ২০২০, ৪.১১ পিএম
  • ৮৪ বার পঠিত

পেকুয়া প্রতিনিধি:

পেকুয়ায় মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মো: খাইরুল এনামকে বৈধতা দিল কক্সবাজার জেলা আ’লীগ। দলীয় অন্ত: কোন্দল ও দ্বন্ধের নিরসনসহ সাংগঠনিক কর্মকান্ড গতিশীল করতে জেলা আ’লীগ এ সংক্রান্ত বিষয়ে মতামত ব্যক্ত করেছেন।

লিখিত মতামতে কক্সবাজার জেলা আ’লীগের তরফ থেকে জানানো হয়েছে দলের ঘোষণাপত্র ও গঠনতন্ত্র মোতাবেক খাইরুল এনাম বাংলাদেশ আ’লীগ মগনামা ইউনিয়ন শাখার বৈধ সভাপতি। তাকে অব্যাহতি দেয়া হয়নি। অগঠনতান্ত্রিক তৎপরতা আ’লীগে মেনে নেওয়ার সুযোগ নেই। সংগঠক হতে হলে দলের স্বকীয়তা ও গঠনতন্ত্র অনুসরণ করতে হবে। দলীয় সিদ্ধান্ত অবজ্ঞা করার সুযোগ কাউকে দেয়া হয়নি। কারো ব্যক্তিগত দ্বন্ধ সংগঠনের উপর বর্তাবে কেন। দলীয় সিদ্ধান্তের জন্য কমিটি আছে। কারো অজ্ঞতা ও উচ্ছৃংখলতা প্রতীয়মান হলে দলীয় সিদ্ধান্তের মাধ্যমে জড়িত ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার যুক্তিগত অধিকার আছে। কিন্তু ব্যক্তিদ্বন্ধ আপনি সংগঠনের উপর চাপানোর এখতিয়ার রাখেন কিভাবে।

এ দিকে মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি মো: খাইরুল এনামকে নিয়ে দ্বন্ধের অবসানের জন্য জেলা আ’লীগ ওই নীতিগত সিদ্ধান্তে উপনীত হয়েছে। সম্প্রতি পেকুয়ায় মগনামা ইউনিয়ন কমিটি নিয়ে দ্বন্ধ দেখা দিয়েছে। চলতি বছরের ৬ মার্চ মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি খাইরুল এনামকে নিয়ে অচলাবস্থা তৈরী হয়েছে। বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে তাকে নিয়ে সংবাদ প্রকাশ হয়েছে। উপজেলা আ’লীগের সম্মেলন প্রস্ততি কমিটির বরাত দিয়ে সংবাদ মাধ্যমে বলা হয়েছে খাইরুল এনামকে দলীয় সভাপতির পদ থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। এর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি খাইরুল এনাম জেলা আ’লীগ কক্সবাজারকে লিখিত অভিযোগ পৌছান। এ সংক্রান্ত বিষয়ে জেলা আ’লীগ নীতিগত সিদ্ধান্তে পৌছতে সক্ষম হয়েছে।

১২ জুলাই রবিবার জেলা আ’লীগ সাধারন সম্পাদক মুজিবুর রহমান লিখিত সুপারিশে জানিয়েছেন মো: খাইরুল এনাম মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগের বর্তমান কমিটির বৈধ সভাপতি। গঠনতন্ত্র মোতাবেক তিনিই বৈধ। সম্মেলন ও কাউন্সিল ছাড়া নেতৃত্বের পরিবর্তন করার সুযোগ নেই। ইউনিয়ন আ’লীগের সভাপতি হিসেবে খাইরুল এনাম সাংগঠনিক কর্মকান্ড পরিচালনা করবেন। আমরা জেলা আ’লীগ চাইব দলকে শক্তিশালী ও গতিশীল রাখতে। ব্যক্তির চেয়ে দল বড়। এ দিকে জেলা আ’লীগের ওই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন মগনামা ইউনিয়ন আ’লীগ। দলটির ইউনিয়ন কমিটির সহসভাপতি নাজিম উদ্দিন জানান, বিনা নোটিশে একজন নির্বাচিত সভাপতিকে এ ভাবে অপমান করার অধিকার আ’লীগ কাউকে দেয়নি।

কিছু গুটিকয়েক ধান্ধাবাজ পেকুয়ায় আ’লীগকে মাঠে দেউলিয়া করছে। বিএনপি-জামায়াতের টাকা নিয়ে বঙ্গবন্ধুর আদর্শের মানুষগুলিকে মাঠ ছাড়া করার কৌশলে তারা ব্যস্ত। অপর সহসভাপতি ও মগনামা ইউপির প্যানেল চেয়ারম্যান আলমগীর বলেন, এখানে আ’লীগ সমর্থকদের উপর জুলুম নির্যাতন বেড়েছে। সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটিতে সকল ইউনিয়নের সভাপতি-সম্পাদককে ঠাই দেয়া হয়েছে। অথচ একমাত্র খাইরুল এনামকে বাদ দিয়েছে। তিনি নৌকার প্রার্থী ছিলেন। অবিভক্ত মগনামারও চেয়ারম্যান ছিলেন। এ রকম মর্যাদাবান মানুষগুলোকে এ ভাবে নাস্তানুবুদ করছে। সাবেক ছাত্রনেতা ও ইউনিয়ন আ’লীগ সহসভাপতি খোরশেদুল ইসলাম জানান, আমরা জেলা আ’লীগকে ধন্যবাদসহ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। খাইরুল এনামের মত একজন নিষ্টাবান ও আদর্শের মানুষকে তারা মূল্যায়ন করেছে। আমাদের অনুভূতিগুলো বুঝার মানুষ জেলা আ’লীগে আছে। জেলা আ’লীগ সদস্য জিএম কাশেম জানান, প্রতিবাদ করার সময় এসেছে। এনাম বৈধ সভাপতি। জেলা আ’লীগ সদস্য এস,এম গিয়াস উদ্দিন জানান, দল কারো বাপ দাদার সম্পত্তি নয়। আপনি সম্মানী মানুষকে অপমান করবেন এখানে আমরা বসে থাকবনা। জেলা আ’লীগের বর্ষিয়ান নেতা মো: হোছাইন বিএ জানান, এনামকে আ’লীগ থেকে বাদ দিয়ে আমরা কি জামায়াত বিএনপিদের নিয়ে আ’লীগ করব। আসলে অবাক কান্ড। পেকুয়ায় এ সব কি হচ্ছে। ইউনিয়ন আ’লীগ সভাপতি খাইরুল এনাম জানান, আমি আ’লীগ করি। আমার বাপ চাচারা মুক্তিযোদ্ধা। আ’লীগ আমার গোষ্টী এ অঞ্চলে ফয়দা করেছে। অথচ স্বাধীনতার সময়ে যারা রাজাকারের বংশধর ছিল এরাই আজকে আমাদেরকে মাঠে দেউলিয়া করার কাজে ব্যস্ত। আমার অভিভাবক জেলা আ’লীগ সভাপতি সিরাজুল মোস্তফা ও সাধারন সম্পাদক কক্সবাজারের আ’লীগের প্রাণ মুজিবুর রহমান মেয়রকে কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। তারা ষড়যন্ত্র না মেনে তা প্রতিহত করছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News