সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:১৩ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মোস্তাক অনুসারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৫ আগস্ট, ২০২১, ১০.০০ পিএম
  • ৪২ বার পঠিত

ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মোস্তাক

অনুসারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী

 

রাকিবুল ইসলাম,স্টাফ রিপোর্টারঃ

 

 

বগুড়ার ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি অধ্যাপক টি আই এম নুরুন্নবী তারিকের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন তথ্য উপস্থাপন করে গত ২৩ আগষ্ট দলের এক অংশের নেতা কর্মীরা সংবাদ সম্মেলন করে অপপ্রচার করার প্রতিবাদে বুধবার দুপুরে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ এক সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকন নিজ বাসভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বলেন, গত ১৫ আগষ্টের জাতীয় শোক দিবসের আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসাবে বক্তব্য দেন দলের সভাপতি টি আই এম নুরুন্নবী তারিখ । তিনি বলেছেন , জাতীর পিতা বঙ্গবন্ধুর আওয়ামীগের ভিতর পাকিস্থানী ছদ্দবেশী আওয়ামীলীগ নামধারী খন্দকার মোস্তাক , তাহের ঠাকুর ও জিয়াউর রহমান সহ ক্ষমতা লোভীরা বঙ্গবন্ধু সহ তার পরিবারের সদস্যদের হত্যা করেছে। খুনি মোস্তাকের অনুসারীরা এখনও আওয়ামীলীগের মধ্যে বিদ্যমান আছে। তাদেরকে চিহ্নিত করে স্বচ্ছ আওয়ামীলীগ প্রতিষ্ঠা করতে দলের নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ থাকার আহবান জানান। অথচ দলের একটি অংশের কতিপয় নেতা একটি বিশেষ মহলকে খুশি করতে সভাপতি সাহেবের বক্তব্য বিকৃতি করে গত ২৩ আগষ্ঠ সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে যে মিথ্যা, ভিত্তিহীন হাস্যকর, উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে তথ্য উপস্থাপন করেছেন তিনি তার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছেন। তিনি বলেন, গত পৌরসভা নির্বাচনে দলীয় প্রার্থীর বিপক্ষে ভোট করার অভিযোগে এ জিএম বাদশাহকে দল থেকে বহিস্কার করা হয়েছে এবং কয়েকজনকে দল থেকে অব্যহতি দিয়ে স্থায়ী বহিস্কারের জন্য দলের সিদ্ধান্ত জেলা কমিটিকে জানানো হয়েছে। এই সমস্ত বহিস্কৃতরা উপজেলা আওয়ামীলীগের নেতাদের বিরুদ্ধে নানা ষড়যন্ত্রে শুরু করেছে। গত ২১ আগষ্ঠ দলের এক অংশের অলোচনা সভায় বহিস্কৃত এ জি এম বাদশাহকে অতিথি করা হয়। তিনি উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাধারন সম্পাদকের বিরুদ্ধে অশালীন কুরুচিপুর্ন বক্তব্য দিয়ে দলের ভাবমুর্তি ক্ষুন্ন করেছেন। এতে দলের উপজেলা সহ তৃনমুলের নেতা ক্ষুব্ধ হয়েছেন। ক্ষুব্ধ নেতা কর্মীরা ওই সকল মোস্তাক অনুসারীদের বিরুদ্ধে সংগঠনিক শাস্তির দাবী করেছেন। সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ন সম্পাদক বাহাদুর আলী, সহ দপ্তর সম্পাদক আব্দুর রাজ্জাক, আওয়ামীগ নেতা আলেপ বাদশা, কামরুল হাসান, মহিলা আওয়ামীলীগের সাভাপতি পপি রানী সাহা, কৃষক লীগের সাধারন সাচ্চু মল্লিক, যুবলীগের সভাপতি ভিপি মতিউর রহমান, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি এবি এস সবুজ, সাধারন সম্পাদক সেলিম রেজা রিমান, ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আবু সালেহ স্বপন।

রাকিবুল ইসলাম

০১৭৪৮৯২৬১৪৯

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News