সোমবার, ২৬ জুলাই ২০২১, ০৯:৩০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
ঈদগাঁওকে নবম উপজেলায় রূপান্তরিত, প্রধানমন্ত্রীকে কৃতজ্ঞতা জানালেন কউক চেয়ারম্যান ফোরকান। নওগাঁয় পুকুরে ডুবে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু  নওগাঁয় র‍্যাব এর অভিযানে বিপুল পরিমাণ বাংলা মদ সহ আটক ৩ জন মহেশখালী প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা মরহুম শফিক উল্লাহ খাঁন -এর জেয়াফত অনুষ্টান অনুষ্ঠিত নওগাঁয় পাট ক্ষেত থেকে যুবকের গলাকাটা লাশ উদ্ধার আধুনিক পুলিশিং এর পথে আরেক ধাপঃ ডিউটিরত পুলিশ সদস্যদের শরীরে স্থাপন করা হল বডি ওর্ন ক্যামেরা চন্দনাইশে খুরশীদ আলম”” পিতা আবদুর রাজ্জাক নিরহ দোকান দারের উপর নব্য আওয়ামী লীগের নামদারি সন্ত্রাসীদের হামলা।  ৪০ হাজার ইয়াবা নিয়ে মরিচ্যা চেকপোস্টে আটক এক,জব্দ টমটম।  নওগাঁয় ঘাতক ট্রাক্টর কেড়ে নিলো দুই ভাইয়ের প্রাণ  কুষ্টিয়ায় অ্যাম্বুলেন্স নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে করোনা রোগীর মৃত্যু, আহত ৫

ছাতকে টিলা ধ্বংস করে মাটি বিক্রি, বিঘ্নিত হচ্ছে পরিবেশ

  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর, ২০২০, ২.৪৪ পিএম
  • ৭২ বার পঠিত

ছাতকে টিলা ধ্বংস করে মাটি বিক্রি, বিঘ্নিত হচ্ছে পরিবেশ

 

ছাতকে টিলা কেটে পাথর উত্তোলন ও মাটি বিক্রি করছে একটি মহল। একমাস ধরে পৌরসভার নোয়ারাই ও নোয়ারাই-ইসলামপুর এলাকার তিনটি বৃহৎ টিলা ধ্বংস করে এ মহলটি পাথর উত্তোলন ও মাটি বিক্রি করে যাচ্ছে। স্থানীয়দের বাঁধার মুখেও প্রভাবশালী চক্র দাপটের সঙ্গে টিলা কেটে পাথর উত্তোলন ও মাটি বিক্রি করছে।

 

এ চক্রের টিলা কাটা ও মাটি বিক্রি এবং মাটি পরিবহনের কারণে এলাকার পরিবেশ বিনষ্ট ও রাস্তা-ঘাট ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। সরকারিভাবে টিলা কেটে পাথর উত্তোলন ও মাটি বিক্রি বন্ধ করে দেয়া হলেও সরকারি নিষেধ-বাঁধা উপেক্ষা করে সরকারি টিলা কেটে লক্ষ লক্ষ ঘনফুট মাটি বিক্রি করা হচ্ছে এখানে প্রতিদিন। নোয়ারাই-ইসলামপুর এলাকার বৃহৎ একটি টিলা মাটি বিক্রি করে ধ্বংস করা হচ্ছে। এ টিলায় প্রায় ২০ টি পরিবারের বসবাস রয়েছে। টিলার বাসিন্দারাই লোভে পড়ে পাথর উত্তোলন ও মাটি বিক্রি করে যাচ্ছে।

 

 

 

বুধবার বিকেলে সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় মাটি বিক্রির কারনে টিলাটি প্রায় ধ্বংসের পথে। আমির আলী নামের একজনকে পাথর উত্তোলন করতে পাওয়া গেলে তিনি জানান, এ টিলায় তার দখলে প্রায় ৩০ শতক ভূমি রয়েছে। তার অংশের অধিকাংশ ভূমির মাটি বিক্রি করা হয়েছে। বিশাল গর্ত করে তিনি পাথর উত্তোলন করছেন। পাশে রয়েছে তার বসতঘর। গর্ত করে পাথর উত্তোলন করার ফলে তার বসতঘরটিও ঝুকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। টিলার আরেক পাশে দেখা গেলো টিলা কেটে ট্রাক্টর দিয়ে মাটি নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। আশপাশ এলাকার বিভিন্ন প্লট ও জমি ভরাট কাজে এসব মাটি ব্যবহার করা হচ্ছে।

পরবর্তীতে লাফার্জ-হোলসিম কারখানায় মাটি বিক্রি করার জন্য বড় টিলার মাটি কম দামে ক্রয় করে নিজেদের জমিতে রেখে দিচ্ছে একটি মহল।

 

এদিকে নোয়ারাই এলাকার গাজীর মোকাম টিলা ও আব্দুস সোবহানের টিলা থেকে প্রতিদিনই ট্রাক ভর্তি করে মাটি বিক্রি করা হচ্ছে। এতে এলাকার পরিবেশ বিনষ্ট সহ ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে এইসব এলাকার ঐতিহ্যবাহী টিলাগুলো। স্থানীয় একাধিক লোক জানিয়েছেন, টিলাগুলোর মধ্যে মালিকানা ও সরকারি টিলা রয়েছে। গত কিছুদিন ধরে প্রতিনিয়ত টিলা কেটে মাটি ও পাথর বিক্রি চলছে।

 

 

 

এ ব্যাপারে সহকারী কমিশনার (ভূমি) তাপস শীল জানান, পরিবেশ সংরক্ষণ আইন অনুযায়ী সরকারি-বেসরকারি ও ব্যক্তিমালিকানাধীন কাজে পাহাড়-টিলা কাটার কোনো সুযোগ নেই। এটি অবশ্যই দণ্ডণীয় অপরাধ। যারা এসব কাজে জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে

 

রিপোর্টঃ পলাশ দেবনাথ দৈনিক এটিএম নিউজ সিলেট।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By BanglaHost