রবিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২১, ০৩:৪৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

কয়লা বিদ্যুৎ এ জমি দিয়ে কোন মালিক টাকা ছাড়া থাকবে না- মাহবুবুল আলম হানিফ

  • আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ২ মার্চ, ২০২১, ৯.৪১ পিএম
  • ১১২ বার পঠিত

কয়লা বিদ্যুৎ এ জমি দিয়ে কোন মালিক টাকা ছাড়া থাকবে না- মাহবুবুল আলম হানিফ

 

 

ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান খান, কক্সবাজার:: বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন,কয়লা বিদ্যুৎ এ জমি দিয়ে কোন মালিক টাকা ছাড়া থাকবে না,সকল জমি মালিকদের দ্রুত জমির মূ্ল্য পরিশোধ করার জন্য জেলা প্রশাসককে তাগিদ দেওয়ার ঘোষনা দেন।

সরকার মহেশখালীকে ঘিরে বিশেষ উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে। তিনি আরো বলেন প্রাকৃতিক সম্পদে ভরপুর কক্সবাজারকে জননেত্রী শেখ হাসিনা বিশেষ গুরুত্ব দিচ্ছেন। সে জন্য আজ এখানে হাজার হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন হচ্ছে। মাতারবাড়িতে কয়লা বিদ্যুৎ প্রকল্প, গভীর সমুদ্রবন্দর, এলএমএনজি টার্মিনাল হচ্ছে। কক্সবাজার উন্নয়নের জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনা দৃষ্টি সবচেয়ে বেশি। এই অঞ্চলের লবণ চাষীরা যাতে লবণের ন্যায্য মূল্য পায় সেজন্য বিদেশ থেকে লবণ আমদানি সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করার জন্য আমি বাণিজ্যমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে অনুরোধ জানাবো। লবণ চাষীদের সমস্যা হয় এমন সিদ্ধান্ত শেখ হাসিনা সরকার কখনো গ্রহণ করবে না।

 

১ই মার্চ সোমবার কক্সবাজার জেলার মাতারবাড়ী হাইস্কুল মাঠে উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তিতায় হানিফ এসব কথা বলেন। জনসভায় বক্তরা বলেন দেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়নে আজ বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রী নারীদের উন্নয়নে ব্যাপক কাজ করেছেন। বিশেষ করে বিধবা ভাতা, স্বামী পরিত্যক্ত ভাতা, দুস্থ ভাতা ও বয়স্ক ভাতা দিয়ে যাচ্ছেন। যা অন্যন্যারা কেউ দেয়নি। দেশে আজ দলের প্রধান নারী, প্রধানমন্ত্রী নারী এবং স্পিকার নারী। এটাই প্রমাণিত শেখ হাসিনা নারীদের নিয়ে কাজ করছেন। শেখ হাসিনার যোগ্য নেতৃত্বে দেশ এখন উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে। যে কারনে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের দরবারে রোল মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। এসবই শেখ হাসিনার অবদান। এ উন্নয়নের ঢেউ লেগেছে মাতারবাড়ী। আর উন্নয়ন প্রকল্পের জন্য যে সব জমি অধিকগ্রহণ করা হয়েছে সেখানে অনেকে টাকা না পাওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে, তারা যাতে টাকা পায় সে ব্যবস্থা করা হবে। আর মাতারবাড়ী প্রকল্পে স্থানীয়দের চাকরির ব্যবস্থা করা হবে।

 

বিএনপির প্রতি ইঙ্গিত করে মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেন, বিএনপি নানাভাবে দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে। উন্নয়নে বাঁধা দিচ্ছে। তারা চক্রান্তের করে বিদেশি এজেন্সি এবং মিডিয়ার মাধ্যমে ক্ষমতায় আসতে চায়। বিএনপির সেই মনোবাসনা কোনদিন পূরণ হবে না। কারণ শেখ হাসিনার সরকার হলো জনগণের নির্বাচিত সরকার। স্বাধীনতার ঘোষক নিয়েও বিএনপি যে ইতিহাস বিকৃতির চর্চা করে আসছেন, তা পুনরায় করার কোন সুযোগ নেই। কারণ বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ। আর বাংলাদেশের ইতিহাসের রন্দ্রে রন্দ্রে এখন বঙ্গবন্ধুর অবস্থান।মাতারবাড়ী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি জিএম ছমি উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম আবু হায়দারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত জনসভায় বক্তব্য রাখেন, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক এড. সিরাজুল মোস্তফা, জেলা আওয়ামীলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এড. ফরিদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক ও পৌর মেয়র মুজিবুর রহমান, মহেশখালী-কুতুবদিয়া আসনের সাংসদ আলহাজ্ব আশেক উল্লাহ রফিক, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ এমপি, কক্সবাজার সদর আসনের সাংসদ সাইমুম সরওয়ার কমল, চকরিয়া পেকুয়া আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব জাফর আলম এমপি, কানিজ ফাতেমা মোস্তাক এমপি, কেন্দ্রীয় কৃষকলীগের সহ-সভাপতি রেজাউল করিম,কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার রোটন,মহেশখালী উপজেলা আওয়ামিলীগের সভাপতি আনোয়ার পাশা চৌধুরী,এসময় অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন, মহেশখালী উপজেলা চেয়ারম্যান শরীফ বাদশাহ, জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এম আজিজুর রহমান বিএ,মেয়র মকছুদ মিয়া,জেলা আওযামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক নাজনীন সরওযার কাবেরী,কক্সবাজার জেলা পরিষদ সদস্য মাস্টার রুহল আমিন ও মশরফা জান্নাত,উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্নসাধারণ সম্পাদক মাস্টার রুহুল আমিন,মহেশখালী উপজেলা মহিলা ভাইচ চেয়ারম্যান মিনুয়ারা ছৈয়দ,কক্সবাজর সদর উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান হামিদা তাহের,উপজেলা আওযামীলীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক ও মেয়র মনোনয়ন প্রার্থী এম নাছির উদ্দিন,উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য নুরুল আমিন খোকা,সদর আওয়ামীলীগের সভাপতি আবু তালেব, কালারমারছড়ার চেয়ারম্যান তারেক বিন ওসমান শরীফ,মাতারবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ উল্লাহ,কুতুবজোমের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন খোকন, হোয়ানকের চেয়ারম্যান মোস্তফা কামাল,ছোট মহেশখালীর চেয়ারম্যান জিহাদ বিন আলী,ধলঘাটার চেয়ারম্যান কামরুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক সাজেদুল করিম,যুগ্ন আহবায়ক এডভোকেট শেখ কামাল, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হালিমুর রশিদ পুতু,সাবেক চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শামসুল আলম,বীরমুক্তিযোদ্ধা ছালেহ আহাম্মদ,সাবেক চেয়ারম্যান এনামুল হক চৌধুরী রুহুল,সাবেক চেয়ারম্যান আহাসান উল্লাহ বাচ্চু,ছাত্রলীগের কামাল উদ্দিন,ছাত্রলীগের শাহনেওয়াজ শানু,জেলা শ্রমিক লীগের সভাপতি জহিরুল ইসলাম ও সম্পাদক শফি উল্লাহ আনসারী,উপজেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি আব্দুশুক্কুর ও সাধারণ সম্পাদক সরওয়ার আলম, জাহাঙ্গীর আলম,পৌর শ্রশিকলীগের সভাপতি রিপন উদ্দিন রিপন,মৎস্যজীবীলীগ নেতা আনচার কোং,জনসভায় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড থেকে শতশত নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে জনসভায় যোগদান করেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News