সোমবার, ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২১, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :

কুষ্টিয়া থেকে গরু চুরি করে আলমডাঙ্গার পুলিশের গ্যারাকলে আটক-৬

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৭ এপ্রিল, ২০২১, ১০.৪৩ পিএম
  • ৪৪ বার পঠিত

কুষ্টিয়া থেকে গরু চুরি করে আলমডাঙ্গার পুলিশের গ্যারাকলে আটক-৬

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি আরাফাত হোসেন

 

গরু চুরি করে পাচারের সময় আলমডাঙ্গায় আন্তঃজেলা গরু চোর চক্রের সক্রিয় ৬ সদস্যকে আটক করেছে পুলিশ।বুধবার ভোর সাড়ে ৪ টার দিকে পুলিশ মুন্সিগঞ্জ রেল গেইট এলাকা থেকে তাদের আটক করে।এ ঘটনায় তিনটি গরু ও চুরির কাজে ব্যবহৃত একটি ট্রাক উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ। এ ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানায় চুরি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

জানাগেছে, আন্তঃজেলা চোর চক্রের ৬ সদস্যরা কুষ্টিয়া জেলা শহরের বটতৈল এলাকা থেকে চুরিকৃত ৩ টি গরু ট্রাক তোলে। ট্রাক যোগে জীবননগরের মহেষপুর গ্রামে পৌঁছে দিতে আলমডাঙ্গা উপজেলাধীন ডাউকি ইউনিয়নের বাদেমাজু গ্রামের নজরুল মন্ডলের ছেলে ফারুকের সাথে যোগাযোগ করে।ফারুক চুয়াডাঙ্গা শহরের তানজিল হোসেনের ঢাকা মেট্রো -ট ২০-৯৭১৯ নম্বর ট্রাকে সে দীর্ঘদিন ভাড়ায় চালায়।কুষ্টিয়া টু মহেষপুর ট্রাক ভাড়া ৮ হাজার টাকা। অতিরিক্ত ৪ হাজার টাকা বাড়িয়ে ১২ হাজার টাকার বিনিময়ে মালিকের অনুপস্থিতিতে রাত সাড়ে ৩ টার দিকে কুষ্টিয়া শহর থেকে চোরাই গরু তোলে গাড়িতে।

ট্রাক যোগে চোরাই গরু পাঁচার কালে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশের নিকট চোরাই গরু পাচারের গোপন সংবাদ আসে। এসময় পৌর এলাকার বন্ডবিলের নিকট পেট্রল ডিউটিতে চেকপোস্ট বসায় থানা পুলিশ।

রাত সাড়ে ৪ টার দিকে পুলিশ ওই ট্রাকে সিগনাল দিলে তারা দ্রুত পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। পুলিশও ট্রাকের পিছু ধাওয়া করে।

এ সময় আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ কৌশল অবলম্বন করে। ফোনে মুন্সিগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশের সহযোগীতায় রেল লাইনের গেইট ফেলে দেয়।আলমডাঙ্গা থানা ও মুন্সিগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশ ট্রাকটিকে ঘিরে ফেলে। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে তারা দৌড়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। ধাওয়া করে পুলিশ ট্রাক ড্রাইভারসহ ৬ জনকে আটক করে। আটককৃত ব্যাক্তিরা হলো- আলমডাঙ্গা উপজেলার বাদেমাজু গ্রামের ফারুক হোসেন, নাগদা গ্রামের বিপ্লব, কাবিলনগর গ্রামের জকিম উদ্দিন, দামুড়হুদা উপজেলা শাহিন আলী, সদর উপজেলার নফরকান্দি গ্রামের আলিম হোসেন ও মোমিনপুর গ্রামের সোহাগ আলী।

তাদের বিরুদ্ধের চুরি সম্পর্কিত আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে সংশ্লিষ্ট মামলায় জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়।

এ ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানার ওসি আলমঙ্গীর কবির বলেন, আমরা সংবাদ পেয়ে রাতে বন্ডবিল এলাকায় পুলিশি অভিযান পরিচালনা করি। তারা পুলিশ দেখে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে ধাওয়া করে তাদের আটক করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News