বুধবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২২, ০৫:৪০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শহীদ শেখ ফজলুল হক মণি আন্তঃউপজেলা ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্ট ২০২২ খুলনা বিভাগে করোনায় ৯ জনের মৃত্যু : শনাক্ত ১২৪ জন। কক্সবাজার সমুদ্র বুকে প্রথম রানওয়ে: দেশে প্রথম টেকনাফের চাঞ্চল্যকর ইসমত আরা হত্যাকান্ডের মামলা এখন হিমাগারে দীর্ঘ ৮০ বছর পর চন্দনাইশ মকবুলিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অভিভাবক নির্বাচন সম্পন্ন হয়, নিখোঁজ_সংবাদ….। টেকনাফে ২লাখ ৫০হাজার পিস ইয়াবাসহ ট্রলার জব্দ ধুনট উপজেলা আওয়ামীলীগের সংবাদ সম্মেলনে খন্দকার মোস্তাক অনুসারীদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিক ব্যবস্থা নেওয়ার দাবী ধুনটে গ্রেনেড হামলা দিবস উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত কক্সবাজারে ‘ওসির ভাব নিয়ে’ মামলা তদন্ত করেন এসআইয়ের স্বামী!

আরিফুল ইসলামের ভাইরাল হওয়া পোস্ট: মহেশখালী উত্তর উপজেলা-থানা বাস্তবায়ন প্রসংগ

  • আপডেট টাইম : বুধবার, ২৮ জুলাই, ২০২১, ৩.২৭ পিএম
  • ৩৯১ বার পঠিত

আরিফুল ইসলামের ভাইরাল হওয়া পোস্ট: মহেশখালী উত্তর উপজেলা-থানা বাস্তবায়ন প্রসংগ

 

ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান খান, কক্সবাজার: কক্সবাজার জেলার ঈদগাঁও কে নাগরিক সেবাকে গুরুত্ব নিয়ে মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর দিকনির্দেশনায় পাশবর্তী কয়েকটি ইউনিয়ন নিয়ে বছর আগে থানা হয় ৷ গত কয়েকদিন আগে উপজেলা ঘোষনা করে মাত্র ১ লক্ষ ২৫ হাজার জনসংখ্যা নিয়ে ৷ এটা ঘোষণার পর প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানায় জেলার আরেকটি অবহেলিত এলাকা মহেশখালী উত্তরে বসবাসরত ক্ষতিগ্রস্থ জনগণ ৷ বাংলাদেশ সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রনালয়ের বিভিন্ন দপ্তরের মহেশখালী উপজেলা প্রশাসনিক সেবা ও থানা সেবা একদম দক্ষিন প্রান্তে; মহেশখালী সর্বমোট ৩০ কিলোমিলারের রাস্তা যা উত্তর প্রান্তে থেকে ২৯ কিলোমিটার দূরত্বে উপজেলা ভবন ৷

 

অনেকের সমাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট উপলব্ধি করলাম, মাতারবাড়ী থেকে সুদূর ২৯কি.মি. পথ অতিক্রম করে মহেশখালী উপজেলায় পৌঁছলাম; কারণ, বৃষ্টির জন্য গাড়ি না পাওয়ায় এখন এসে পৌঁছলাম; এখন বলছে টিকা দেওয়ার সময় ২টা পর্যন্ত ৷ আজকে ৪০০ টাকা খরচ হল; আরেকবার আসলে আবার ৪০০ টাকা খরচ হবে ৷ ছোট ও বড় মহেশখালী, কুতুবজোম ও হোয়ানকের জনগণ ১০-৪০টাকা গাড়ি ভাড়া দিয়ে উপজেলা-স্বাস্থ্য-থানার সেবা পাচ্ছে; যা অন্যান্য ইউনিয়নের মানুষের ৫০-৪০০ টাকা খরচ হয় ৷ এজন্যে উত্তর মহেশখালী থানা-উপজেলা বাস্তবায়ন চাই আমরা ৷

 

চট্টগ্রাম কলেজের সাবেক ছাত্রলীগ নেতা ও মাননীয় শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফের সমর্থক, উপজেলার কালারমারছড়ার বাসিন্দা, মহেশখালী উত্তরের স্থায়ী বাসিন্দা জনাব আরিফুল ইসলাম (Nirlipti Arif) ফেসবুক আইডিতে পোস্ট করলে পোস্টটি ভাইরাল হয় ৷

 

ভাইরাল হওয়া পোস্ট:……..

উপজেলা নিয়ে অনেকেই অনেক মতামত দিচ্ছে আমার এই বিষয় নিয়ে দুকলম লিখার ইচ্ছে ছিল না! আমি ঠোট কাটা স্বভাবের মানুষ মহেশখালী উত্তর থানা-উপজেলা বাস্তবায়নের পক্ষে বিপক্ষে কথা দেখে গা জ্বলে উঠল তাই দু’কলম লিখা।

 

১ ৷ পরিবারকে সামনে আনলে কখনো উপজেলা দুরের কথা একটি তদন্ত ফাঁড়ি হওয়া ও দুস্কর।

 

২ ৷ যে ৫ ইউনিয়নের নাম উচ্চারিত হচ্ছে সে সকল ইউনিয়নের মান্যবর চেয়ারম্যান গন এক টেবিলে বসে একটি সিদ্ধান্তে না পৌছালে উপজেলা দুরের কথা…….

 

৩ ৷ মাননীয় এমপি মহোদয়ের আন্তরিকতা ব্যাতিত প্রশাসনিক একটি ফাইল ও উল্টোদিক হওয়ার অবকাশ নেই।

 

৪ ৷ উপজেলা বা থানা বাস্তবায়নের জন্য বাস্তবায়ন কমিটি করা ব্যাতিত অসম্ভব।

 

এবার আসি আসল কথায়:

অনেকেই মতামত দিয়েছে উপজেলা হওয়ার জন্য হাসপাতাল কলেজ ইত্যাদি হাবিজাবি আবশ্যক! আসলে একটি উপজেলা হতে গেলে এসব কোনটিরও প্রয়োজন নেই। আগে থানা তারপর উপজেলা পরে ক্রমান্বয়ে সরকারী কলেজ, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স, সব মন্ত্রনালয়ের প্রশাসনিক কর্যক্রম আপনাআপনি হয়ে যায় অর্থাৎ সরকার এসব নিজ থেকেই করতে বাধ্য।

 

বিদ্রঃ উপজেলা করবেন, থানা করবেন নাকি তদন্ত ফাঁড়ি করবেন সেটি মাননীয় এমপি মহোদয়ের সদইচ্ছাই হবে ৷

আমার মতে জনগন আপনাদের চাকর মাত্র…..

 

এ পোস্টের পরিপ্রেক্ষিতে দক্ষিণ-উত্তরের সচেতন নাগরিকদের মধ্যে গিয়াস উদ্দিন নামের একজন শিক্ষক কমেন্টে বলেন, মাননীয় এমপি মহোদয়ের ভূমিকা এখানে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। ওনাকে ছাড়া থানা/উপজেলা বাস্তবায়ন করা মোটেই সম্ভব নয়।

 

CPEZ এর সিনিয়র অফিসার কামরুল হাছান শিপু বলেন, যুক্তিসংগত কথা। যদিও আমরা দাবি করে আসছি ধলঘাটা, মাতারবাড়ী, হোয়ানক, কালারমারছড়া, শাপলাপুর এ ৫ টি ইউনিয়ন নিয়ে আলাদাভাবে একটি উপজেলা করার; কিন্ত সাথে সাথে এটাও কি ভাবা উচিৎ না- বর্তমানে মহেশখালীতে কয়টি ইউনিয়ন আছে? মহেশখালীতে আরেকটি উপজেলা-থানা বাস্তবায়ন করতে হলে ইউনিয়ন পরিষদ গুলোকে আগে বিভক্ত করে ইউনিয়ন সংখ্যা বাড়াতে হবে। না হলে কোন ভাবেই উপজেলা হওয়া সম্ভব না আমার মতে। এদিকে আমরা নতুন উপজেলা পাওয়ার দাবি করে আসছি আর বিপক্ষরা মজা নিচ্ছে যে আমাদের দাবি শুনে। আমাদের দাবি ৫ ইউনিয়ন নিয়ে। আর বাকী থাকে ৩টি ইউনিয়ন আর একটি পৌরসভা তা দিয়ে কি একটি উপজেলা থাকতে পারে? আবার ১টি ইউনিয়ন বাদ দিয়ে ৪ টি ইউনিয়ন নিয়ে উপজেলা কল্পনা করা মানে হল আমাদের আবেগ ছাড়া আর কিছুই নয়। তাই আগে ইউনিয়ন পরিষদ বাড়াতে হবে তা হলে উপজেলা পাওয়া সহজ হবে।

 

কমেন্টে বর্তমান মহেশখালী উপজেলা আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ছৈয়দুল কাদের বলেন, “জনগন দেশের মালিক চাকর নয়! তোমার লেখার সঠিক, পূর্বশর্ত পুরণ না হলে উপজেলা হওয়ার সুযোগ নেই। শুরুতে ইউনিয়নের সংখ‍্যা বাড়াতে হবে; তারপর উপজেলা। তাই আগে অন্তত আরো তিনটি ইউনিয়ন বাড়ানো না গেলে উপজেলা হবে না। সচিব (স্থানীয় সরবার বিভাগের সচিব হেলাল উদ্দিন ) হলে সব পারে না। এখানে সচিব কোন বিষয় নয়। উনি প্রজাতন্ত্রের কর্মচারী। সরকারের নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করেন সচিব। এটি রাজনৈতিক সরকার। রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত ছাড়া কিছুই হবে না।

 

উত্তরে পোস্টকারী আরিফ বলেন, আগে মালিক ছিল এখন চাকর! চাকর বলার কারন হল জনগনের মনের ভাব নেতারা যদি অনুধাবন করত- তবে একটি উপজেলার জন্য যা যা করতে হয় তা ধীরে ধীরে করে ফেলত। আমাদের ইউনিয়ন গুলো বিশাল সে জন্য জনগন সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত। আপনার বাকি কথা মাননীয় এমপি মহোদয়ের সৎ মনোভাব থাকলে কোন ব্যাপার না।

 

কমেন্টে শাওয়াল নামের এক স্টুডেন্ট বলেন, ইউনিয়ন ভাগটা কালারমারছড়া দিয়েই শুরু হোক। তখন বাকি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানগনেরও আগ্রহ তৈরি হবে।

 

উত্তরে পোস্টকারী আরিফ বলেন, ভাগ চাইলে কি তুমি করতে পারবা? এটি উপজেলা প্রশাসন ও এমপি মহোদয়ের কাজ।তাদের সৎ উপলব্ধি যথেষ্ট।

নিউজটি শেয়ার করুন

এ জাতীয় আরো খবর..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

doeltv38GRD5838
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Developed By ATM News